এবার ব্যবসায়ীকে হত্যা

রাজধানীর মিরপুরে গতকাল শনিবার দুপুরে বাসায় ঢুকে এবার এক আবাসন ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এই ব্যবসায়ীর নাম জাফরুল হক ওরফে মোক্তার হোসেন মিনা (৫০)। তিনি ‘হোম টেক ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড’-এর স্বত্বাধিকারী।মিরপুরে রূপনগর থানা এলাকার ৬ নম্বর সেকশনে ‘ট’ ব্লকে নিজের ছয়তলা বাড়ির দোতলায় পরিবার নিয়ে থাকতেন জাফরুল। নিচতলায় বাড়ির প্রধান ফটক দিয়ে ঢুকে হাতের বাঁ পাশে তাঁদের বসার কক্ষ। ওই কক্ষে থাকা একটি ছোট সিঁড়ি দিয়ে দোতলার বাসায় আসা-যাওয়া করা হয়।স্থানীয় সূত্র ও রূপনগর থানার পুলিশ জানায়, গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নিচতলার কক্ষটিতে সোফায় বসে ছিলেন জাফরুল। এ সময় এক যুবক সেখানে ঢুকে তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি করে মোটরসাইকেলের পেছনে বসে পালিয়ে যান।চিৎকার শুনে দোতলা থেকে পরিবারের সদস্যরা আসার আগেই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনে ও পরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে বেলা দুইটার দিকে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। তাঁর ডান বুকে ও ডান হাতে গুলিবিদ্ধ হয়েছে। জাফরুলের ছেলে রাজীব আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, গুলিবর্ষণকারী যুবককে তিনি মোটরসাইকেলের পেছনে উঠে চলে যেতে দেখেছেন। দুই যুবককে তিনি চিনতেও পেরেছেন। মাদারীপুরের শিবচরের ক্রোকচরে প্রতিপক্ষ সিকদার বাড়ির লোক তাঁরা।

রাজীব বলেন, গ্রামে তাঁর দাদা-দাদি থাকেন। সেখানে তাঁদের দেখতে যান তাঁর বাবা। দুই বছর আগে গেলে সিকদার বাড়ির লোকজন তাঁর বাবার কাছে পাঁচ লাখ চাঁদা দাবি করেন। এতে অস্বীকৃতি জানান তাঁর বাবা। এ ঘটনায় শিবচর থানায় একটি মামলা হয়। পরে তাঁর বাবা আবার গ্রামের বাড়িতে গেলে সিকদারের বাড়ির লোকজন তাঁকে পেটান এবং গাড়ি ভাঙচুর করেন। এ ঘটনায় একই থানায় আরেকটি মামলা হয়। ওই মামলার এক আসামি জামিন নিয়ে বিদেশে চলে যান। ওই আসামির পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী তাঁর বাবাকে হত্যা করা হয়েছে।

বাড়ির নিরাপত্তাকর্মী মো. শাহীন বলেন, বাড়ির প্রধান ফটকের ছোট দরজা খোলা ছিল। জাফরুলের পাঁচতলার বাসা পরিষ্কার করতে তিনি ওপরে গিয়েছিলেন।

জাফরুলের ভাই পল্লবী থানা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক অলিউল হক প্রথম আলোকে বলেন, জাফরুল পল্লবী থানা আওয়ামী লীগের একটি ওয়ার্ডের ইউনিট সদস্য ছিলেন। চাঁদা না দেওয়া ও জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সিকদার বাড়ির লোকজন তাঁকে হত্যা করেছে।

রূপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিকদার মো. শামীম হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, পরিবারের অভিযোগের সূত্র ধরে তদন্ত শুরু হয়েছে। মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে। লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।