জাপানে বাংলার মুখ…মনজুরুল হক, টোকিও থেকে

বিদেশে বাংলাদেশকে তুলে ধরার উদ্দেশ্যে নানা ধরনের যেসব অনুষ্ঠানের আয়োজন নিয়মিতভাবে বিভিন্ন দেশে করা হচ্ছে, তার অধিকাংশই আমাদের সংগীত ও নৃত্যকলার সঙ্গে সম্পর্কিত। এসব অনুষ্ঠানের বেশির ভাগ আবার প্রবাসীদের মনোরঞ্জন আর বিনোদনের উদ্দেশ্যে আয়োজিত হওয়ায় সেগুলোকে ঠিক বিদেশে বাংলাদেশকে তুলে ধরার ব্যবস্থা হিসেবে গণ্য করা যায় না। তাই মাটি, কাঠ, বাঁশ, সুতা আর পিতল-কাঁসা দিয়ে তৈরি নানা উপকরণের মতো আমাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের যে অংশটি লোকজ ধারার সঙ্গে সম্পর্কিত; বিদেশে উপস্থাপনার বেলায় তা অনেকটাই যেন উপেক্ষিত থেকে যাচ্ছে। সেদিক থেকে সত্যিকার অর্থে ব্যতিক্রমী ও ভিন্নধর্মী এক আয়োজন কিছুদিন আগে পর্যন্ত বসেছিল জাপানের শিকোকু দ্বীপের কাগাওয়া জেলার তাকামাৎসু শহরে। ছয় সপ্তাহ ধরে চলা বাংলাদেশের লোকশিল্পের নানা দিক জাপানের দর্শকদের সামনে তুলে ধরার বিশেষ সেই প্রদর্শনী ১ সেপ্টেম্বর শেষ হয়েছে এবং মাসাধিক কাল ধরে বিচিত্র অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে কাটানোর পর এতে যোগ দেওয়া চারু, দারু, কারু ও মৃৎশিল্পের কারিগরেরা ইতিমধ্যে দেশে ফিরে গেছেন। ছয় সপ্তাহের সেই আয়োজনে বাংলাদেশের লোকজশিল্পকেই কেবল তাঁরা তুলে ধরেননি, সেই সঙ্গে তাঁদের দক্ষ হাতের ব্যবহার কীভাবে নানা রকম সামগ্রীকে পণ্যের আকার দিয়ে থাকে, সেটাও তাঁরা দর্শকদের দেখিয়েছেন।  Click for details