জিম্বাবুয়ের পর বাংলাদেশকে পাকিস্তানে চায় পিসিবি

pcb

প্রশ্নটা ঘুরেফিরে উঠছে সেই ২০১২ সাল থেকেই—পাকিস্তান সফরে যাবে বাংলাদেশ? আবারও একই প্রশ্নের পুনরাবৃত্তি। এটি আবারও উঠছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খানের মন্তব্যের পর। সম্প্রতি বাংলাদেশ-ভারত সফর শেষে দেশে ফিরেই আশাবাদ ব্যক্ত করে পিসিবি চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, জিম্বাবুয়ের পর বাংলাদেশকে চায় তারা। আর এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) নাকি বেশ ইতিবাচক।
অবশ্য জিম্বাবুয়ের পাকিস্তান সফর নিয়ে এখনো ধোঁয়াশা কাটেনি। পাকিস্তানে নিরাপত্তা পরিস্থিতি আগের মতোই। এ মাসের শুরুতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে পাকিস্তানের নিযুক্ত নরওয়ে ও ফিলিপাইনের রাষ্ট্রদূত মারা যান। দুর্ঘটনার আসল কারণ জানা না গেলেও তালেবানরা দাবি করেছে, তাদের হামলাতেই হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে। মাত্রই কদিন আগে করাচিতে বন্দুকধারীর গুলিতে ৪৩ জন বাসযাত্রী নিহত হন।
জিম্বাবুয়ের পাকিস্তান সফর নিয়েই যেখানে অনিশ্চয়তার কালো মেঘ, সেখানে স্থানীয় সাংবাদিকদের শাহরিয়ার বলেছেন, ‘আমরা বাংলাদেশকে পাকিস্তানে একটা সফরের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়ে​ছি। তারা এ ব্যাপারে ইতিবাচক সাড়াও দিয়েছে। আমরা তাদের অনূর্ধ্ব ১৯ ও মহিলা দলকেও পাকিস্তানে পাঠানোর কথা বলছি। বাংলাদেশ মহিলা দলের পাকিস্তান আসার ব্যাপারটি আগস্টের শুরুতে হতে পারে।’
পাকিস্তানে বাংলাদেশ মহিলা দল পাঠানোর খবর বেশ পুরোনোই। অনেক দিন ধরেই এমনটা শোনা যাচ্ছে। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ৬ মে ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনের খেলা শেষে শাহরিয়ার এ ব্যাপারে নিজেদের প্রত্যাশা পুনর্ব্যক্ত করেছিলেন। তবে শাহরিয়ারের গতকালকের মন্তব্য নতুন করে বিভ্রান্তি তৈরি করতে পারে। তাঁর মন্তব্যে আছে ‘বাংলাদেশকে’ পাকিস্তান সফরে আমন্ত্রণ জানানোর কথা। এবং তাতে নাকি বিসিবি সাড়াও দিয়েছে। বাংলাদেশকে বলতে তিনি সম্ভবত জাতীয় দলকেই বোঝাচ্ছেন। কারণ তার পরের মন্তব্যে আলাদা করে যুবদল ও মহিলা দলের কথা আছে। শাহরিয়ারের মন্তব্যের সূত্র ধরেই বার্তা সংস্থা পিটিআই শিরোনাম করেছে: ‘জিম্বাবুয়ের পর বাংলাদেশকে হোম সিরিজের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছে পিসিবি’।

বিষয়টি খোলাসা করতে প্রথম আলোর পক্ষ থেকে বিসিবির সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। বিসিবির বক্তব্য, পাকিস্তানে মূল দল পাঠানোর ব্যাপারে কোনো আলোচনাই হয়নি। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বললেন, ‘পিসিবি চেয়ারম্যানের সঙ্গে বৈঠকে মূল দল পাঠানোর ব্যাপারে এখনো আমাদের কোনো কথা হয়নি। কথা হয়েছে কেবল মহিলা দল ও ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের টিম পাঠানোর ব্যাপারে।’