লেখক অনন্ত হত্যায় চারজনের বিরুদ্ধে মামলা

Ananta

সিলেটে ব্লগার ও লেখক অনন্ত বিজয় দাশকে হত্যার ঘটনায় অজ্ঞাত চার ব্যক্তিকে আসামী করে একটি মামলা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার গভীর রাতে ওই মামলাটি করেন অনন্তর বড় ভাই রত্নেশ্বর দাশ।

তবে এখন পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি।

ওই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সিলেটে আধাবেলার হরতাল চলছে।

পুলিশ জানিয়েছে, এর আগে তিনজন ব্লগার খুনের ঘটনার সাথে এই হত্যাকাণ্ডের মিল আছে কিনা, সেটি তারা খতিয়ে দেখছেন।

আধা বেলা হরতাল

ওই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বুধবার সকাল থেকে সিলেটে আধাবেলা হরতালের ডাক দিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট ও গণজাগরণ মঞ্চ।

হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বুধবার নগরীর কয়েকটি এলাকায় মিছিল হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে সিলেট নগরের সুবিদবাজারে চৌরাস্তার মোড়ে কর্মস্থলে যাবার সময় অনন্তকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

অনন্ত লেখালেখি করতেন এবং সম্প্রতি তার একটি বইও প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া সিলেট থেকে প্রকাশিত বিজ্ঞান বিষয়ক একটি পত্রিকাও তিনি সম্পাদনা করতেন।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের উদ্বেগ

অনন্ত বিজয় দাশের হত্যার ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

নিউইয়র্ক ভিত্তিক সংগঠনটি এক বিবৃতিতে বুধবার জানিয়েছে, এর আগের কয়েকটি হামলার ধারাবাহিকতায় অনন্ত দাশের উপর হামলা বাংলাদেশে ধর্মীয় স্বাধীনতা ও মুক্ত চিন্তার উপর আরেকটি আঘাত।

সংস্থাটির এশিয়া পরিচালক ব্রাড এডামস বলেছেন, স্বাধীনতার পথ রুদ্ধ করতেই এসব হামলা চালানো হচ্ছে। এজন্য দায়ীদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনা বাংলাদেশ সরকারের দায়িত্ব।

হামলার ঝুঁকিতে রয়েছেন, এমন কথিত ‘নাস্তিক’ ব্লগার ও লেখকের নিরাপত্তায় দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।