স্প্যানিশ লিগ চলবে, রোববার জিতলেই চ্যাম্পিয়ন মেসিরা

 

ফুটবলাররা ধর্মঘট ডেকেছিলেন ঠিকই। কিন্তু এই ধর্মঘট ডাকার আইনগত ভিত্তি আছে কিনা, সেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্পেনের আদালত। আদালত রায় দিয়েছেন, ধর্মঘট চলবে না। অর্থাৎ যথা সময়ে স্প্যানিশ লিগ গড়াচ্ছে। রোববার অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে জিতলেই লা লিগার মুকুট আবার মাথায় উঠবে বার্সেলোনার। গতবার বার্সাকে হারিয়েই শিরোপা জিতেছিল অ্যাটলেটিকো। ফর্মের তুঙ্গে থাকা মেসি-নেইমার-সুয়ারেজদের জন্য সুযোগ এসেছে প্রতিশোধ নেওয়ার।
ম্যাচটি অবশ্য হবে ভিসেন্তে ক্যালদরনে। অ্যাটলেটিকোর নিজেদের মাঠে। কাজটা বার্সার জন্য অবশ্যই কঠিন। তবে এই মৌসুমে তিনবারের দেখায় প্রতিবার অ্যাটলেটিকোকে হারিয়েছে বার্সা। লিগে প্রথম দেখায় জিতেছিল ৩-১ গোলে। কোপা ডেল রের কোয়ার্টার ফাইনালের দুই লেগে জিতেছে ১-০ ও ৩-২ গোলে।
রোববার অ্যাটলেটিকোকে হারালে বার্সার পয়েন্ট হয়ে যাবে ৯৩। ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে থাকা রিয়াল শেষ দুটো ম্যাচ জিতলেও পয়েন্ট হবে ৯২।
বার্সার কাজটা আরও সহজ করে দিতে পারে রিয়াল মাদ্রিদ। বার্সা যেমন মাদ্রিদে খেলতে যাচ্ছে, একই দিন একই সময়ে রিয়াল খেলবে বার্সেলোনা শহরে। এসপানিয়লের সঙ্গে ম্যাচ আছে তাদের। কাতালান চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে এসপানিয়ল যদি রিয়ালকে হারিয়ে দেয়, বার্সার আর কিছুই করতে হবে না। শেষ দুটো ম্যাচ হারলেও বার্সাই চ্যাম্পিয়ন। রিয়াল শেষ ম্যাচ জিতলেও তাদের পয়েন্ট হবে ৮৯, বার্সার পয়েন্ট এখনই ৯০।
রিয়ালের কি একেবারেই সুযোগ নেই? আছে। বার্সা যদি এক ম্যাচ হারে আর এক ম্যাচ ড্র করে, তাহলে তাদের পয়েন্ট হবে ৯১। তখন রিয়াল শেষ দুটো ম্যাচ জিতলে চ্যা​ম্পিয়ন তারাই। তবে এই মৌসুমে বার্সা সর্বশেষ দুই ম্যাচে জয়-বঞ্চিত ছিল গত নভেম্বরে। লিগে সর্বশেষ ১৯ ম্যাচে মাত্র একটাতেই হেরেছে। তা ছাড়া লিগের শেষ ম্যাচটা তাদের দেপোর্তিভো লা করুনিয়ার সঙ্গে। অবনমনের শঙ্কায় ধুঁকতে থাকা করুনিয়াকে ২৩ মে বার্সা নিজেদের মাঠে হারাতে পারবে না? শেষ দুই ম্যাচের একটাতে জিতলেই চলে বার্সার।
রিয়ালের আশা তাই আসলেই তেমন একটা নেই। বরং বার্সা এখন আরও একবার শিরোপাত্রয়ী জেতার একদম কাছে। লিগের পাশাপাশি কাপের ফাইনা​ল হওয়াতেও এখন আর বাধা নেই। ৩০ মে কোপা ডেল রের সেই ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ অ্যাথলেটিক বিলবাও। ৬ জুন চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে প্রতিপক্ষ জুভেন্টাস।
বার্সা এর আগে ‘ট্রেবল’ জিতেছিল পেপ গার্দিওলার অধীনে। ২০০৯ সালে​ শিরোপা-ষষ্ঠকও জিতেছিল তারা। লিগ-কাপ-চ্যাম্পিয়নস লিগের ট্রেবল জিতলে পারলে আরও একবার এক বছরে ছয় শিরোপা জেতার সুযোগ তৈরি হবে বার্সার সামনে। ইতিহাসে আর কোনো দল এক বছরে ছয়টি শিরোপার সবগুলো জিততে পারেনি। বার্সার সামনে হাতছানি দিচ্ছে সেই কৃতিত্ব দুবার করে দেখানোর!